সাবেক ২ ইউপি চেয়ারম্যানকে মিথ্যা মামলায় গ্রেফতারের অভিযোগ

0
4

নিজস্ব প্রতিবেদক
ভোলার ভিন্ন দুই উপজেলা ও দুই ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান ও ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের নেতাকে মিথ্যা মামলায় গ্রেফতার করা হয়েছে বলে অভিযোগ করেছেন পরিবারের সদস্যরা।

গতকাল পরিবারের পক্ষে ঢাকার বনানীতে এক সংবাদ সম্মেলনে গ্রেফতারের এই অভিযোগ করা হয়।
গ্রেফতারকৃতরা হলেন, লালমোহন উপজেলার চরভূতা ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান ও আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি মো: হোসেন হাওলাদার এবং তজুমদ্দিন উপজেলার চাঁচড়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক ও সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান রিয়াদ হোসেন হান্নান।

পরিবারের সদস্যদের দাবি, মিথ্যা মামলায় ভোলা সদর থেকে তাদের গ্রেফতার করে লালমোহন থানায় নিয়ে আসেন লালমোহন থানা পুলিশ। সাবেক এই দুই ইউপি চেয়ারম্যান আগামী দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন প্রত্যাশী ইঞ্জিনিয়ার আবু নোমান হাওলাদারের সমর্থক হওয়ায় বর্তমান সাংসদের রোষের শিকার।

সংবাদ সম্মেলনে আটক চেয়ারম্যানের স্বজন মিজানুর রহমান টিপু জানান, সম্প্রতি বর্তমান সংসদ সদস্যের সমর্থক এবং আবু নোমান হাওলাদারের সমর্থকদের মধ্যে দ্বন্দ্ব দেখা দেয়। এর রেশ ধরে গ্রেফতার এক চেয়ারম্যানের বাড়িতে হামলা ও ভাঙচুর করা হয়। এর প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন ও বিচারের দাবি করেন সাবেক ও দুই চেয়ারম্যান হোসেন হাওলাদার ও রিয়াদ হোসেন হান্নান। এর ফলে নুরুন্নবী চৌধুরী শাওন পুলিশের ওপর চাপ প্রয়োগ করে তাদের গ্রেফতার করিয়েছেন বলে দাবি করেছেন ভুক্তভোগী পরিবারের সদস্যরা।

পরিবারের সদস্যদের দাবি, এই বিষয়ে জানতে লালমোহন থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো: মাহবুবুর রহমানকে মুঠোফোনে কল দিলে প্রসঙ্গটি শুনে কোনো জবাব না দিয়ে সংযোগ বিচ্ছিন্ন করে দেন তিনি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here