নাটোরের হাসপাতালে ধারণ ক্ষমতার চেয়ে বেশি করোনা রোগী

0
50

নাটোর সংবাদদাতা
নাটোর আধুনিক সদর হাসপাতালে ৩১ শয্যার একটি করোনা ইউনিট চালু করা হলেও শনিবার সকাল পর্যন্ত রোগী রয়েছেন ৩৮ জন। করোনা আইসোলেশান ওয়ার্ডে রোগীর ধারণক্ষমতা না থাকায় আউটডোরে রোগী রেখে চিকিৎসা কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ।

অপরদিকে নাটোর সদর আধুনিক হাসপাতালে আইসিইউ না থাকায় জটিল রোগীদের রাজশাহী বা ঢাকায় পাঠানো হচ্ছে। ১৫ লিটার অক্সিজেন ধারণ সম্পন্ন ক্যানুলা অক্সিজেন সিলিন্ডার দিয়ে সেন্ট্রাল অক্সিজেন সাপ্লাই সিস্টেম চালু করা হলেও অক্সিজেন টারবাইন প্লান্ট স্থাপন করা হয়নি। রাজশাহী থেকে রিফিল করে এনে রোগীদের অক্সিজেন দেয়া হচ্ছে।

নাটোর হাসপাতালের আবাসিক চিকিৎসক ডা. মঞ্জুরুর রহমান গণমাধ্যমকে জানান, নির্মাণাধীন ২৫০ শয্যার একটি ফ্লোরে আরও ২০টি বেড স্থাপনের চেষ্টা চালানো হচ্ছে। বাড়তি করোনা রোগীরা চিকিৎসা যাতে পায় সেজন্য এই ব্যবস্থা করা হচ্ছে।

তিনি বলেন, আশা করছি, আগামী সপ্তাহ থেকে সেটি চালু করা সম্ভব হবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here